Thursday, 18 August 2022

ওয়াও বাংলাদেশ – চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারে সাহসী নারীর অনুপ্রেরণার গল্প

নারীদের প্রাপ্তিগুলোকে সবার সামনে তুলে ধরতে এবং নারীদের প্রতি বৈষম্যভাব সম্পর্কে সবাইকে সচেতন করতে দূর করার লক্ষ্যে ২০১০ সালে জুড কেলি, সি বি ই, প্রথমবারের মত চালু করেছিলেন WOW Festival। ব্রিটিশ কাউন্সিল, মঙ্গলদীপ ফাউন্ডেশন এবং সি সি ডি বাংলাদেশ এর সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ওয়াও বাংলাদেশ – চট্টগ্রাম চ্যাপ্টার।

সভ্যতার উন্নতির সাথে সাথেই দুর্ভাগ্যজনকভাবে বেড়েছে বৈষম্য, বেড়েছে অন্যায়। বিভিন্নভাবে নারীরা হচ্ছেন সহিংসতার শিকার। তবু শত বাধা পেরিয়ে নারীরা উড়ছেন মুক্ত পাখির মত। ওয়াও বাংলাদেশ – চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারে আমন্ত্রিত নারীরা তাদের জীবন যাত্রার অনুপ্রেরণামূলক গল্পগুলো শেয়ার করবেন দর্শকদের সাথে। তাদের মধ্যে একজন হলেন অধ্যাপক ডা. বাসনা মুহুরী। তিনি পেশায় শিশুস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এবং দীর্ঘদিন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশুস্বাস্থ্য ওয়ার্ডে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ‘নিষ্পাপ অটিজম ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি। তার ৩৩ বছর বয়সী ছেলে আছে, যিনি অটিজম পরিস্থিতিতে আছেন। নিজে পেশায় চিকিৎসক হলেও সমাজের সকলকে সচেতন করতে তাকে নিতে হয়েছে নানা পদক্ষেপ, শুনতে হয়েছে নানা গঞ্জনা। অটিজম নিয়ে বাংলাদেশে নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন। তিনি এমন বিশ্ব গড়তে চান, যেখানে বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদেরও প্রতিভা বিকশিত হবে।

এছাড়া নিজের সংগ্রামের গল্প শেয়ার করবেন উম্মে তানজিলা চৌধুরী মুনিয়া। যিনি জন্মের পর থেকেই দেখেননি পৃথিবীর আলো। কিন্ত মনের ইচ্ছা শক্তি দিয়ে জয় করেছেন অন্ধত্বকে। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চ শিক্ষাও গ্রহণ করেছেন। বর্তমানে তিনি পটিয়ার মোহছেনা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। সুরেলা গলায় সঙ্গীত পরিবেশন করে শ্রোতাদের মুগ্ধও করতে পারেন তিনি। অন্ধত্বের কাছে হার মানেননি তানজিলা, এগিয়ে চলেছেন নিজেকে প্রমাণ করে।

CCD Bangladesh © 2022 All Rights Reserved.